আন্তর্জাতিক মাজলিসু রুইয়াতিল হিলাল
১৪ শাওওয়াল শরীফ ১৪৪৩ হিজরী

দর্শকঃ অনেকে বলে থাকে চাঁদ পশ্চিমে উঠে ফলে পশ্চিমের দেশগুলোতে চাঁদ আগে দেখা যায়। এ ব্যাপারে আপনি কি বলেন?

চাঁদ গবেষকঃ আসলে সূর্য যেমন পূর্বে উঠে এবং পশ্চিমে অস্ত যায় একইভাবে চাঁদও পূর্বে উঠে এবং পশ্চিমে অস্ত যায়। এখন প্রশ্ন জাগতে পারে সূর্য পূর্বে উঠলেও আমরা সারাদিন তাকে দেখতে পাই আবার অস্ত যাবার সময়ও দেখতে পাই কিন্তু চাঁদ পূর্বে উঠলে আমরা দেখতে পাইনা কেন? এর কারণ হচ্ছে অমাবশ্যার পর চাঁদ এবং সূর্য একই সাথে উঠে কিন্তু সূর্যের আলোর তীব্রতার কারণে চাঁদের আলো দেখা যায়না। কিন্তু যখন চাঁদের অস্ত যাবার সময় হয় আর সূর্য যদি আগেই ডুবে গিয়ে থাকে তখন পশ্চিম আকাশে যে পরিবেশ তৈরি হয় সেই আলোতে চাঁদের আলো ফুটে উঠে এবং আমরা চাঁদ দেখতে পাই। তাহলে বোঝা গেল চাঁদ আসলে পশ্চিমে উঠেনা বরং পূর্বেই উঠে আমরা কেবল অস্ত যাবার সময় নতুন চাঁদ দেখতে পাই।

দর্শকঃ আর পশ্চিমের দেশগুলোতে চাঁদ আগে দেখা যায় এর ব্যাখ্যা কি?

চাঁদ গবেষকঃ আমরা এখন বাংলাদেশে আছি তাই আমাদের পশ্চিমে আছে ভারত, পাকিস্তান, ইরান এভাবে অনেক দেশ তাইনা? ধরুন আপনি আমেরিকাতে আছেন তাহলে আপনার পশ্চিমের দেশ কোনটা হবে? তখন পশ্চিমের দেশ হবে নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ইত্যাদি। অথচ নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া হচ্ছে বাংলাদেশের পূর্ব দিকে।এভাবে প্রত্যেক দেশের পশ্চিমেই অনেক দেশ আছে। যেমন সউদী আরবের পশ্চিমে আছে মরক্কো, স্পেন ইত্যাদি দেশ সমূহ। ফলে পশ্চিম দিকের দেশ আগে চাঁদ দেখবে কথাটি শুদ্ধ নয়। তবে এটি সত্য যে কোন দেশে নতুন চাঁদ প্রথম দেখা গেলে সাধারনভাবে তার পশ্চিম দিকের দেশগুলোতে চাঁদ আরও ভালভাবে দেখা যাবার সম্ভাবনা থাকে যদি আকাশ পরিস্কার থাকে।

দর্শকঃ তাহলে বোঝা গেল অনেক মানুষ না বুঝেই কথা বলে এবং বিতর্ক করে।

চাঁদ গবেষকঃ সঠিক। তবে তার চেয়েও সঠিক অনেক মানুষ নিজেও জানে না, যে আসলে সে জানেনা।